প্রকাশিত বাক্য 18
SBCL
18
বাবিল শহরের ধ্বংস
1এর পরে আমি আর একজন স্বর্গদূতকে স্বর্গ থেকে নেমে আসতে দেখলাম। তাঁর মহা ক্ষমতা ছিল এবং পৃথিবী তাঁর মহিমায় উজ্জ্বল হয়ে গেল। 2তিনি জোরে চিৎকার করে বললেন, “ধ্বংস হয়েছে, সেই নাম-করা বাবিল ধ্বংস হয়েছে! ওটা এখন মন্দ আত্মাদের থাকবার জায়গা হয়েছে আর প্রত্যেকটি মন্দ আত্মার আড্ডাখানা আর অশুচি ও জঘন্য পাখীর বাসা হয়েছে, 3কারণ সে তার ব্যভিচারের ভয়ংকর মদ সব জাতিকেই খেতে দিয়েছে। পৃথিবীর রাজারা তার সংগে ব্যভিচার করেছে, আর পৃথিবীর ব্যবসায়ীরা তার লাগাম-ছাড়া কামনার দ্বারা ধনী হয়েছে।”
4তারপর আমি স্বর্গ থেকে আর একজনকে বলতে শুনলাম, “আমার লোকেরা, তোমরা বাবিল থেকে বের হয়ে এস যেন তার পাপের ভাগী তোমরা না হও, আর যে সব আঘাত তার উপরে পড়বে তার কোনটাই যেন তোমাদের ভোগ করতে না হয়। 5তার পাপ আকাশ পর্যন্ত উঁচু হয়েছে আর তার মন্দ কাজের কথা ঈশ্বর মনে করেছেন। 6সে অন্যদের সংগে যেমন ব্যবহার করেছে তার সংগেও তেমনি ব্যবহার কর; তার কাজের পুরোপুরি ফল তাকে দাও। যে পেয়ালার মধ্যে সে অন্যদের জন্য মন্দ মিশাত, তাতে তার পুরোপুরি শাস্তি মিশিয়ে তাকে খেতে দাও। 7সে নিজের বিষয়ে যত বেশী গর্ব করেছে, যত বেশী উচ্ছঙ্খল ভাবে বাস করেছে, ঠিক ততটা যন্ত্রণা ও দুঃখ তাকে দাও; কারণ তার অন্তরে সে ভাবে, ‘আমি তো রাণী হয়ে বসে আছি, আমি বিধবা নই; কোনমতেই আমি দুঃখ বোধ করব না।’ 8তাই এক দিনেই সব আঘাত তার উপরে পড়বে; সেগুলো হল মৃত্যু, দুঃখ আর দুর্ভিক্ষ। আগুন দিয়ে তাকে পুড়িয়ে ফেলা হবে, কারণ যিনি তার বিচার করবেন সেই প্রভু ঈশ্বর শক্তিমান।”
9পৃথিবীর যে সব রাজারা তার সংগে ব্যভিচার করেছে এবং উচ্ছৃঙ্খল ভাবে তার সংগে বাস করেছে তারা তাকে পুড়িয়ে ফেলবার সময় ধূমা দেখে কাঁদবে এবং তার জন্য দুঃখ করবে। 10তারা তার যন্ত্রণা দেখে ভয়ে দূরে দাঁড়িয়ে থেকে বলবে, “হায় বাবিল, হায়! সেই নাম-করা শহর, ক্ষমতায় পূর্ণ সেই শহর! এত অল্প সময়ের মধ্যেই তোমার শাস্তি এসে গেছে!”
11পৃথিবীর ব্যবসায়ীরাও তার জন্য কাঁদবে আর দুঃখ করবে, কারণ তাদের জিনিসপত্র আর কেউ কিনবে না। 12তাদের সেই সব জিনিসপত্রের মধ্যে আছে-সোনা, রূপা, দামী পাথর ও মুক্তা; মিহি মসীনার কাপড়, বেগুনী রংয়ের কাপড়, রেশমী ও লাল কাপড়; অনেক রকম সুগন্ধি কাঠ ও হাতীর দাঁতের তৈরী নানা জিনিস; খুব দামী কাঠ দিয়ে তৈরী এবং পিতল, লোহা ও মার্বেল পাথর দিয়ে তৈরী নানা জিনিস; 13দারচিনি, এলাচ, ধূপ, আতর ও গন্ধরস; আংগুর-রস, জলপাইয়ের তেল, ময়দা আর গম; গরু ও ভেড়া, ঘোড়া ও গাড়ী আর ক্রীতদাস।
14সেই ব্যবসায়ীরা বলবে, “যে ফল তুমি লাভ করতে চেয়েছিলে তা তোমার কাছ থেকে দূরে সরে গেছে; তোমার সব ধন ও জাঁকজমক ধ্বংস হয়ে গেছে। লোকে আর কখনও সেই সব পাবে না।” 15যারা এই সব জিনিসের ব্যবসা করে বড়লোক হয়েছিল সেই ব্যবসায়ীরা তার যন্ত্রণা দেখে ভয়ে দূরে দাঁড়িয়ে থাকবে। 16তারা কেঁদে কেঁদে দুঃখ করে বলবে, “হায়, হায়! মিহি মসীনার কাপড় আর বেগুনে ও লাল কাপড় পরা এবং সোনা, দামী পাথর ও মুক্তা দিয়ে সাজ-গোজ করা সেই নাম-করা শহর! 17এত অল্প সময়ের মধ্যেই তোমার এমন মহা ধন-সম্পদ সব নষ্ট হয়ে গেছে!”
জাহাজের প্রধান কর্মচারীরা, জলপথের যাত্রীরা, নাবিকেরা এবং সমুদ্রে যারা ব্যবসা-বাণিজ্য করে তারা সবাই দূরে দাঁড়িয়ে থাকল। 18তাকে পোড়াবার সময় ধূমা দেখে তারা চিৎকার করে বলল, “আর কোন্‌ শহর এই নাম-করা শহরের মত?” 19তারা তাদের মাথায় ধুলা দিয়ে চিৎকার করতে থাকবে এবং কেঁদে কেঁদে দঃখ করে বলবে, “হায়, সেই নাম-করা শহর, হায়! সমুদ্রে যাদের জাহাজ আছে তারা তার ধনের দ্বারাই বড়লোক হয়েছিল; আর দেখ, অল্প সময়েই সে ধ্বংস হয়ে গেল!”
20তখন সেই স্বর্গদূত বললেন, “হে স্বর্গ, ঐ শহরের ধ্বংসের জন্য আনন্দিত হও। ঈশ্বরের লোকেরা, প্রেরিতেরা আর নবীরা, আনন্দিত হও। তোমাদের বিরুদ্ধে সে যা করেছিল তার জন্য ঈশ্বর তার বিচার করেছেন।”
21পরে একজন শক্তিশালী স্বর্গদূত বড় জাঁতার মত একটা পাথর নিয়ে সমুদ্রে ফেলে দিয়ে বললেন, “এমনি করেই সেই নাম-করা বাবিল শহরটাকে ফেলে দেওয়া হবে। তাকে আর কখনও পাওয়া যাবে না। 22যারা বীণা বাজায়, গান গায় এবং বাঁশী বা তূরী বাজায় তাদের শব্দ আর কখনও তোমার মধ্যে শোনা যাবে না। আর কখনও তোমার মধ্যে কোন রকম দক্ষ মিস্ত্রি পাওয়া যাবে না। কোন জাঁতার শব্দ আর কখনও তোমার মধ্যে শোনা যাবে না। 23বাতির আলো আর কখনও তোমার মধ্যে জ্বলবে না। বর-কনের গলার আওয়াজও আর তোমার মধ্যে কখনও শোনা যাবে না। তোমার ব্যবসায়ীরা পৃথিবীতে বিখ্যাত ছিল, আর সব জাতিই তোমার যাদুর ছলনায় ভুলত। 24নবীদের, ঈশ্বরের লোকদের আর যে সব লোকদের এই পৃথিবীতে মেরে ফেলা হয়েছে তাদের রক্ত এই বাবিলেই পাওয়া গেছে।”

© The Bangladesh Bible Society, 2000

Learn More About Pobitro Baibel